1. admin@bengalexclusive.com : admin :
  2. bibhas@sudhankarwinner.com : BIBHAS DUTTA : BIBHAS DUTTA
  3. sasanka@bengalexclusive.com : Sasanka Paul : Sasanka Paul
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উচ্ছেদ করতে চায় স্থানীয় দাদারা!বিপাকে সিউড়ির তালতলা পতিতা পল্লীর পতিতারা যোগী রাজ্যে একশো বছরের বৃদ্ধাকে ধর্ষণ!তিনবছর পর অপরাধীকে ২৫০০০টাকা জরিমানা কোর্টের ইকবাল পুর হত্যা কাণ্ডে নতুন মোড়!উঠে আসলো বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কর কথাও এবার গবেষণায় উঠে আসলো হুইস্কি খাবার হাজারো সুফল! জেনে নিন কি কি স্ত্রীর ধর্ষণের প্রতিশোধ নিতে বন্দুকের গুলি কিনতে গিয়ে ধৃত স্বামী! এবার ফেলুদার ফেসবুক একাউন্টেই কুরুচিকর পোস্ট! রাজ্য বিজেপিতে আবারও চাগাড় দিচ্ছে গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব!ঝক্কি পোহাতে হলো কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে বিজেপিতে গিয়ে নিস্তার নেই মুকুলের!আবারও সম্পত্তির হিসেব চাইলো ই ডি প্রশান্ত কিশোরের সামনে এবার বিজেপি আই টি সেলের প্রধান অমিত মালব্য মৃত্যুর বারো ঘন্টা আগে সৌমিত্রর মৃত্যুর খবর প্রচার করে অভদ্রতার নজির গড়লেন অনুপম হাজরা!

Google Ads

আইপিএল এর সাথে পুরো দমে চলছে বিপুল টাকার বেটিং! হদিশ মিলছে বিভিন্ন শহরে

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৮ বার পঠিত

আইপিএল এ জুয়া খেলার সুযোগ আইনত ভাবে দেওয়া হয়েছে সকলকেই ড্রিম ইলেভেনের মাধ্যমে। কিন্তু যাদের ঐটুকুতে পোষায়না তারা শহর ব্যাপী জুয়ার আয়োজন করে। এরকমই একের পর এক চক্র চলে এসেছে এতদিন। এবারে আইপিএল শুরু না হতেই রমরমা কারবার দেখা গেলো বেটিং ব্যবসায়ীদের। এক সপ্তাহও হয়নি টুর্নামেন্ট। এরই মধ্যে বড়সড় ক্রিকেট বেটিং চক্রের হদিশ মিলেছে কলকাতায়। বৃহস্পতিবার রাতে বেটিং চক্রের সন্ধানে লালবাজার থেকে কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালানো হয়। আর সেই তল্লাশিতেই হদিশ মিলল এই চক্রের। গোয়েন্দা পুলিশের হাতে এখনও অবধি গ্রেপ্তার হয়েছে মোট ৯ জন। তাদের জেরা করা হচ্ছে। পুলিশের সূত্র অনুযায়ী, লালবাজারে গোয়েন্দারা খবর পান শহরের কয়েকটি হোটেল ও বাড়িতে চলছে ক্রিকেট বেটিং। সেইমতো প্রথমে পার্ক স্ট্রিট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তিন জনকে ধরা হয়। তাদের কাছ থেকে মোবাইল ও ল্যাপটপ পাওয়া যায়। তাদের জেরা করে উত্তর কলকাতার বড়তলা, মধ্য কলকাতার হেয়ার স্ট্রিট, দক্ষিণ কলকাতার যাদবপুর থানা এলাকার বেশ কয়েকটি গেস্ট হাউস ও বাড়িতে চালানো হয় তল্লাশি।
গ্রেপ্তার হওয়া ৯ জনের কাছ থেকে ১৭টি মোবাইল ফোন, ১৪টি ল্যাপটপ, তিনটি টিভি, একটি গাড়ি ও দেড় লাখ টাকা নগদ উদ্ধার করা হয়েছে। রাতে তল্লাশি চালানো হয় সল্টলেকের কয়েকটি জায়গাতেও। মুম্বই ও দেশের অন্যান্য বড় শহরের সঙ্গে কলকাতার এই বেটিং চক্রের যোগাযোগও রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। রাতে কলকাতার আরও বেশ কয়েক জায়গায় চলে তল্লাশি। ক্রিকেট জুয়াড়িরা কয়েকটি অ্যাপ ও ওয়েবসাইট ব্যবহার করছে, এমন তথ্য এসেছে পুলিশের হাতে। তার ভিত্তিতে তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
আইপিএল বা অন্যান্য ক্রিকেট টুর্নামেন্ট চলাকালীন শহরে বেটিং চক্রের রমরমা নতুন কিছু নয়। কিন্তু এবছর করোনা আবহেও যে এত ব্যপক হারে বেটিং চক্র চলতে পারে, তা অবাক করেছে অনেককেই। লালবাজারের গোয়েন্দাদের ধারণা, এই চক্রের শিকড় আরও গভীরে। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও বিস্ফোরক তথ্য মিলবে। তার ভিত্তিতে আগামী দিনে আবারও তল্লাশি চালানো হতে পারে। ” সত্য সেলুকাস! বড়ো বিচিত্র এই দেশ। ” কথাটা ঠিকই, শেয়ার মার্কেটে কোটি কোটির জুয়ায় কোনো দোষ নেই, দোষ নেই ঊনপঞ্চাশ টাকার মোবাইল জুয়া তেও। অথচ মাঝারি বেটিং কারীদের থাকতে হয় রাজরোষে। দেশের সমস্ত সেক্টরের সমস্ত জুয়া নিষিদ্ধ হবে কবে!

প্রতিবেদনে- তানভি সুলতানা

Google Ads

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর

Google Ads

© All rights reserved © 2020 bengalexclusive.com
Theme Customized By BreakingNews