1. admin@bengalexclusive.com : admin :
  2. bibhas@sudhankarwinner.com : BIBHAS DUTTA : BIBHAS DUTTA
  3. sasanka@bengalexclusive.com : Sasanka Paul : Sasanka Paul
শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০২:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দিয়েগোর হঠাৎ মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ বিশ্ব উচ্ছেদ করতে চায় স্থানীয় দাদারা!বিপাকে সিউড়ির তালতলা পতিতা পল্লীর পতিতারা যোগী রাজ্যে একশো বছরের বৃদ্ধাকে ধর্ষণ!তিনবছর পর অপরাধীকে ২৫০০০টাকা জরিমানা কোর্টের ইকবাল পুর হত্যা কাণ্ডে নতুন মোড়!উঠে আসলো বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কর কথাও এবার গবেষণায় উঠে আসলো হুইস্কি খাবার হাজারো সুফল! জেনে নিন কি কি স্ত্রীর ধর্ষণের প্রতিশোধ নিতে বন্দুকের গুলি কিনতে গিয়ে ধৃত স্বামী! এবার ফেলুদার ফেসবুক একাউন্টেই কুরুচিকর পোস্ট! রাজ্য বিজেপিতে আবারও চাগাড় দিচ্ছে গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব!ঝক্কি পোহাতে হলো কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে বিজেপিতে গিয়ে নিস্তার নেই মুকুলের!আবারও সম্পত্তির হিসেব চাইলো ই ডি প্রশান্ত কিশোরের সামনে এবার বিজেপি আই টি সেলের প্রধান অমিত মালব্য

Google Ads

“মুসলিম”তাই জায়গা দিলোনা গেস্টহাউস!রাস্তায় বৃষ্টিতে অসহায় হয়ে ভিজতে হলো দশ জন শিক্ষককে

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৪ বার পঠিত

মুসলমান হওয়া কি এমনি দোষের হতে পারে! যে সেই দোষের কারণেই মানুষ মানুষ কে ত্যাগ করবে, অসহায় অবস্থায় পাশে দাড়াবেনা, তৃষ্ণায় জল দেবেনা! কাজের সূত্রে বিকাশভবনে আসা ১০ জন মাদ্রাসা শিক্ষকের সাথে এমনি অমানবিক আচরণের অভিযোগ উঠলো সল্টলেক এর একটা গেস্টহাউসের বিরুদ্ধে। শিক্ষকদের অভিযোগ, ধর্মীয় পরিচয় মুসলিম, শুধুমাত্র এই কারণেই তাদের গেস্টহাউস থেকে একপ্রকার তাড়িয়ে দেওয়া হলো,অথচ ওই গেস্টহাউসে উনারা আগেই বুকিং করিয়ে রেখেছিলেন। এভাবে তাড়িয়ে দেওয়ার পর মালদা থেকে আগত ওই শিক্ষকদের অচেনা শহরে প্রবল বৃষ্টির মধ্যে কার্যত অসহায় অবস্থায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে ভিজতে হয়েছে। এরপর উনারা একটি শিক্ষক সংগঠনের সহযোগিতা পান। ওই সংগঠনের সহযোগিতাতেই মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে বিষয়টি জানানো হয়। পাশাপাশি অভিযোগ ও দায়ের করা হয় বিধাননগর পুলিশের কাছে। সকালের ঘটনার পর সন্ধ্যার দিকে সন্দেহভাজন পাঁচজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে বিধাননগর কমিশনারেট।

বিকাশ ভবনে ডাইরেক্টর অফ মাদ্রাসা এডুকেশন বিভাগে কাজের সূত্রে সোমবার মালদা থেকে ওই ১০ জন শিক্ষক কলকাতা আসেন। মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে এবং বিধাননগর পুলিশকে দেওয়া অভিযোগপত্র অনুসারে, গেস্ট হাউস কর্তৃপক্ষ তাদের জানায়, সংখ্যালঘুদের ঘর দেওয়া যাবে না। এই ঘটনায় দু’টি গেস্ট হাউজের বিরুদ্ধে অভিযোগের তির। সল্টলেক সেক্টর টু-এর ডিএল ৩৯ নম্বর বাড়ির একটি গেষ্ট হাউজের এক কর্মীর মাধ্যমে সিএল ১৬৪ নম্বর বাড়ির এড্রোলিস গেস্ট হাউসে মালদার ১০ শিক্ষকের জন্য তিনটি ঘর বুক করেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষা সংগঠনের নেতা মইদুল ইসলাম। তিনি আরো জানান, বুকিং এর সময় অগ্রিম টাকা দেওয়া হয়েছে। তারপর এদিন সকালে গেস্ট হাউসে পৌঁছনোর পর বৈধ পরিচয়পত্র দেখিয়ে বোর্ডিং করেন ওই দশজন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই গেস্ট হাউজ কর্তৃপক্ষ ওই শিক্ষকদের রুম ছেড়ে বেরিয়ে যেতে বলে। বাইরে প্রবল বৃষ্টি। ভিজতে ভিজতেই বিকাশ ভবন আসেন ১০ শিক্ষক। তারপর তাঁরা মেট্রো ওভারব্রিজের নিচে গিয়ে আশ্রয় নেন । এরপর পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের সহযোগিতায় বিধাননগর পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। এবং বিকেলে মুখ্যমন্ত্রীর অফিসেও বিষয়টি জানানো হয়।

মেহবুব রহমান, জাহাঙ্গীর গনি, ওবায়দুর রহমান-সহ আরো সাত জন মালদা থেকে এসেছিলেন। তাঁদের অভিযোগ, গেস্ট হাউস কর্তৃপক্ষ কেবল খারাপ আচরণ করেছেন এমনটি নয়, চরম দুর্ব্যবহারও করেছেন তারা। একপ্রকার বলপূর্বক গেস্টহাউস থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে সবাইকে। পুলিশ সূত্রের খবর, সিএল ব্লকের ওই গেস্ট হাউসের এক কর্তার নাম তন্ময় মুখোপাধ্যায়। একাধিকবার ফোন করা সত্ত্বেও কোনও উত্তর দেননি তিনি। তবে গেস্ট হাউজের এক কর্মীর বক্তব্য, তাদের সমস্ত ঘর ভরতি ছিল বলে জায়গা দেওয়া সম্ভব হয়নি। এই ঘটনার নিন্দা করে পথে নামতে চলেছে সিপিএম। এদিন সংগঠনের পলিটব্যুরোর সদস্য মহম্মদ সেলিম এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বলেন, ‘এই ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না। এই ঘটনা ফ্যাসিবাদের পদধ্বনি।’ এই ঘটনা বীভৎস আঘাত দেয় মানবতাকে।প্রশ্ন তোলে ধর্মবিদ্বেষীরা কি মানুষ কে মানুষ বলেই দেখতে চায়না কোনোদিন!

প্রতিবেদনে-জাহেদ আলী

Google Ads

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর

Google Ads

© All rights reserved © 2020 bengalexclusive.com
Theme Customized By BreakingNews